বর্তমানে ভাইরাল সিনেমা ‘দ্য কাশ্মীর ফাইলস’ -এ কেন গান করতে চাননি লতাজি? জানুন আসল সত্য!

নিজস্ব প্রতিবেদন:এমন কিছু চলচ্চিত্র রয়েছে যা খুব সহজেই আমাদের মনে জায়গা করে নেয়। যেমন গত বছরের শেষদিকে মুক্তি প্রাপ্ত পুষ্পা চলচ্চিত্রটি বক্সঅফিসে অতি সহজেই সাফল্য লাভ করেছিল। এমনকি সোশ্যাল মিডিয়ায় এই চলচ্চিত্রের প্রতিটি গান এবং সংলাপ রীতিমতো ভাইরাল হয়ে উঠে এসেছিল।

সম্প্রতি আবারও নেটিজেনদের মন জয় করে নিয়েছে দ্য কাশ্মীর ফাইলস ছবিটি। গত 11 ই মার্চ এই চলচ্চিত্রটি মুক্তি পেয়েছে। জানা যাচ্ছে কাশ্মীরি পণ্ডিতদের জীবনের উপর এই ছবিটি তৈরি করা হয়েছে।কিভাবে একদা কাশ্মীরি পণ্ডিতদের ওপর ইসলাম ধর্ম গ্রহণের জন্য অত্যাচার করা হয়েছিল সেটাই এই চলচ্চিত্রের মূল বিষয়।

এই ছবিটি নির্দেশনা করেছেন বিবেক অগ্নিহোত্রী।জি স্টুডিও দ্বারা প্রযোজিত, ছবিটি কাশ্মীর বিদ্রোহের সময় কাশ্মীরি হিন্দুদের দেশত্যাগের চিত্র তুলে ধরেছে।

যেখানে দেখা যাচ্ছে কিভাবে তাদের ইসলাম ধর্ম গ্রহণের জন্য বলপূর্বক অত্যাচার করা হয়েছিল। শুধুমাত্র তাই নয় ইসলাম ধর্ম গ্রহণ না করলে তাদের খুন করে দেওয়া হবে এমনটাও বলা হয়েছিল। এই সময় বহু কাশ্মীরি পন্ডিত এর পরিবারের মা বোনকে ধর্ষণ করা হয় এবং মেরে ফেলা হয়।

গত কয়েকদিনের মধ্যেই ছবিটি দর্শকদের মন জয় করে নিয়েছে। ছবিটিতে অভিনয় করেছেন অনুপম খের, দর্শন কুমার, মিঠুন চক্রবর্তী, পল্লবী জোশি, চিন্ময় মান্ডলেকর,পুনিত ঈশার, ভাষা সুম্বলি প্রমূখ। প্রসঙ্গত এই ছবিটির ট্রেইলার মুক্তি পেতেই নেটিজেনদের মধ্যে জোর চর্চা শুরু হয়েছিল। ছবিটির খলচরিত্রে অভিনয় করে নিজের সংলাপের মাধ্যমে বিশেষভাবে নজর কেড়েছেন পল্লবী যোশী।

জানা যায় চিত্রনাট্যের ঘোষণার পর থেকে বার বার হুমকির মুখে পড়তে হয়েছিল পরিচালক বিবেক আগ্নিহোত্রীকে। গত 19 জানুয়ারি সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট করে সেকথা নিজেই জানিয়েছিলেন তিনি। মেসেজ করে অকথ্য ভাষায় তাঁকে গালিগালাজ; শোনা যায়, খুনের হুমকিও পাচ্ছিলেন তিনি। তার জেরে টুইটার ছাড়েন পরিচালক। বিবেকের কথা অনুযায়ী, কাশ্মীরি ভাই ও বোনদের যন্ত্রণার আসল কাহিনি তিনি পর্দায় ফুটিয়ে তুলতে চেয়েছেন। সম্প্রতি এই চলচ্চিত্র সম্পর্কে বেশ কিছু চাঞ্চল্যকর তথ্য উঠে এসেছে।

জানা যাচ্ছে এই চলচ্চিত্রের গান গাইতে চলেছিলেন জনপ্রিয় কণ্ঠশিল্পী লতা মঙ্গেশকর। বিবেক অগ্নিহোত্রী এই ছবিতে গান গাওয়ার কথা লতাজি কে বললে তিনি জানিয়েছিলেন, কাশ্মীরের সঙ্গে তার বরাবর থেকেই আবেগ জড়িয়ে রয়েছে। তাই অবশ্যই এই ছবিতে গান গাইবেন তিনি। যদিও এর পরেই করোনা পরিস্থিতি অত্যন্ত বাড়বাড়ন্ত হয়ে ওঠে।

যে কারণে স্টুডিও যেতে রাজি ছিলেন না লতা মঙ্গেশকর। শেষমেষ নানান ধরনের জটিলতার কারণে লতা মঙ্গেশকর এর জায়গায় অন্য শিল্পীকে দিয়ে এই গানটি গাওয়ানো হয়। তবে এই ছবিতে লতাজির গান গাইতে না পারার জন্য দুঃখ প্রকাশ করেছেন বিবেক অগ্নিহোত্রী।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button