নিজের সন্তানকে আরও মেধাবী করে তুলতে চান? ঘুম পারান এই সময়! রইল বিস্তারিত।

নিজস্ব প্রতিবেদন:-জন্ম হবার পর থেকেই শুরু হয়ে যায় প্রতিযোগিতা ।যেনতেন প্রকারে এই প্রতিযোগিতায় নিজেকে জিততে হবে না হলে সমাজ থেকে হারিয়ে যাব আমরা । ছোটবেলা থেকেই প্রতিনিয়ত বাচ্চা ছেলেদের কে চাপ দিয়ে এগিয়ে নিয়ে যাওয়া হয় ।একাধিক নিয়মের মধ্যে তাদেরকে ফেলে দেওয়া হয় ।

কিন্তু বারবার সাধারণ অভিভাবকদের মনে থেকে থাকে যে কিভাবে তার শিশুকে তারা মেধাবী করবেন ।তার উত্তর রয়েছে আপনার বাড়ির মধ্যে ।মস্তিষ্ককে সঠিকভাবে চালানোর করার জন্য ঘুম অত্যন্ত দরকার । যদি কোন ব্যক্তির পর্যাপ্ত পরিমাণে ঘুম না হয় তাহলে শরীরে একাধিক সমস্যা দেখা যায় ।

বর্তমান প্রজন্মের অধিকাংশ ছেলে-মেয়ে রাত জেগে মোবাইল ঘাটে বা আরও একাধিক কাজকর্মের জন্য তেমনভাবে ঘুমাতে পারে না ।কিন্তু যদি একটি শিশু ছোট থেকে পর্যাপ্ত পরিমাণে ঘুমের অভ্যস্ত হয়ে ওঠে তাহলে কিন্তু সে মেধাবী হবে এবং তার মানসিক বিকাশ ঘটবে সম্পূর্ণ রকম ভাবে ।কিন্তু কখন ঘুমালে এর কার্যকারিতা সবথেকে বেশি মাত্রায় পাওয়া যাবে তার উত্তর হলো দুপুরবেলা ।

সম্প্রতি একটি গবেষণায় দেখা গেছে যে যে সমস্ত বাচ্চারা দুপুর বেলায় ঘুমায় তাদের কিন্তু মেধা শক্তি এবং কোন কিছু শেখার আগ্রহ অন্যান্য বাচ্চাদের তুলনায় যথেষ্ট পরিমান আলাদা হয় তার পাশাপাশি বিশেষজ্ঞরা জানাচ্ছেন যে যে সমস্ত শিশুরা এখনো পর্যন্ত স্কুলের গন্ডি ছুঁয়ে দেখেনি তাদের অতি অবশ্যই অন্তত এক ঘণ্টা ঘুম জরুরি ।

এতে স্মৃতিশক্তি বৃদ্ধি পায় এবং শেখার ক্ষমতা বেড়ে ওঠে সময়ের সাথে সাথে ।একটি পরীক্ষা করে দেখা গেছে যেখানে বাচ্চাদের কে দুই ভাগে ভাগ করা হয়েছে। একদলকে দুপুরে ঘুমাতে দেওয়া হয়নি এবং অন্য দলকে দুপুরে পর্যাপ্ত পরিমাণে দেওয়া হয়েছে ।

তার পরদিন সকাল বেলায় তাদের মধ্যে পরীক্ষা নেওয়া হয়েছিল এবং যারা দুপুরে ঘুমায়নি তাদের মধ্যে ৩৫% বিষয়গুলি মনে রাখতে পেরেছিল এবং যারা দুপুরে ঘুমিয়ে ছিল তাদের মধ্যে ৭৭% বিষয়গুলোকে মনে রাখতে পেরেছিল । এবং এই ঘটনাগুলো থেকে এমনটা প্রমাণিত হয় যে হলেই দুপুরে ঘুমালে বাচ্চাদের স্মৃতিশক্তি বৃদ্ধি পায়।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button