গুমোট গরমে অস্থির গোটা রাজ্য! তবে কি বৃষ্টি হতে চলেছে? কি বলছে আবহাওয়া দপ্তর? জানুন বিস্তারিত!

নিজস্ব প্রতিবেদন:এপ্রিল মাসের শুরুর আগেই রাজ্যের বিভিন্ন অংশে একধাক্কায় অনেকটাই ঊর্ধ্বমুখী হয়ে গিয়েছে তাপমাত্রা। আকাশের গুমোট মেঘলা পরিস্থিতি দিন প্রতিদিন আরও ভয়ঙ্কর হয়ে উঠছে। বিগত বেশ কিছুদিন ধরেই ঘূর্ণিঝড়ের সম্ভাবনার কথা সামনে আসলেও এখনো পর্যন্ত তা নিয়ে বিস্তারিত কিছু জানাতে পারেননি আবহাওয়াবিদেরা।

উল্টে হাওয়া অফিসের তরফ থেকে জানানো হয়েছে আপাতত রাজ্যে বৃষ্টির কোনরকম পূর্বাভাস নেই।প্রসঙ্গত দিন কয়েক আগে বঙ্গোপসাগরে নিম্নচাপ ঘনীভূত হলেও তা মায়ানমারের দিকে অগ্রসর হয়েছে।এমতাবস্থায় উত্তর-পশ্চিম দিকে হাওয়ার প্রভাব থাকলেও বৃষ্টির কোন সম্ভাবনার কথা জানানো যাচ্ছে না।

তবে উত্তরবঙ্গে একটি ঘূর্ণাবর্ত লক্ষ্য করা যাচ্ছে। এই ঘূর্ণাবর্ত শক্তিশালী হলে উত্তরবঙ্গের পাহাড়ি জেলাগুলিতে বৃষ্টিপাত হতে পারে। পাহাড়ি জেলাগুলির মধ্যে রয়েছে দার্জিলিং এবং জলপাইগুড়ি।

এসময় সর্বোচ্চ তাপমাত্রা 36 থেকে 37 ডিগ্রি সেলসিয়াস এর মাঝামাঝি থাকবে। দক্ষিণবঙ্গের ক্ষেত্রে আকাশ সম্পূর্ণ পরিষ্কার থাকবে। উপরন্তু জলীয়বাষ্পের পরিমাণ বৃদ্ধি পাওয়ার কারণে গুমোট গরমের পরিমাণ আরো বেড়ে যেতে পারে বলে আশঙ্কা প্রকাশ করেছেন আবহাওয়াবিদেরা।

অনেকেই এই সময়ে তাপপ্রবাহ নিয়ে চিন্তা প্রকাশ করেছিলেন। তবে জানা যাচ্ছে তাপমাত্রা বৃদ্ধি পেলেও আপাতত তাপপ্রবাহের সম্ভাবনা নেই। আগামী তিন মাস গড় তাপমাত্রা মোটামুটি স্বাভাবিকের থেকে কিছুটা নিচেই থাকবে।

প্রসঙ্গত এপ্রিল মাসের শুরুর দিকে ঘূর্ণিঝড়ের দেখা মিলতে পারে বলে দাবি করছেন বিজ্ঞানীরা। আজ শহরাঞ্চলের সর্বোচ্চ তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়েছে 35 ডিগ্রি সেলসিয়াস।অন্যদিকে সর্বনিম্ন তাপমাত্রা থাকবে 26 ডিগ্রি সেলসিয়াসের আশেপাশে। গত 24 ঘন্টায় কোন বৃষ্টি হয়নি।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button