ঝরঝরে ইংরেজি ভাষায় কথা বলে ভিক্ষা করছে মেয়েটি! দেখে মুগ্ধ অনুপম খের! মুহূর্তে ভাইরাল হল ভিডিও।

নিজস্ব প্রতিবেদন :- কথাটা আছে don’t judge a book by its cover অর্থাৎ উপর থেকে কাউকে বিচার করা ঠিক নয় এটা হচ্ছে এর বাংলা অনুবাদ। এই ঘটনার প্রমাণ আমাদের চারিপাশে একাধিকবার দেখতে পাওয়া যায়। তবে কখনও কখনও সেই সমস্ত ঘটনাগুলো এতটা তীব্র পরিমানে মাথা চাড়া দিয়ে ওঠে খবরের শিরোনাম দখল করে যে খুব অল্প সময়ের মধ্যে তারা চলে আসে লাইম নাইটের কেন্দ্রবিন্দুতে।সেরকম হলো নেপালের এই পথ শিশুর সাথে।

তবে তার সাথে জড়িত ছিল বিখ্যাত অভিনেতা অনুপম খের। বেশ কিছুদিন আগে অনুপম খের নেপালের রাজধানী কাঠমান্ডু ঘুরতে গিয়েছিলেন ।কিন্তু সেখানে দেখা হয় এক পথশিশুর সাথে। তারপর যে অভিজ্ঞতা সঞ্চয় করেন তার জীবনের সবথেকে দামি বলে মনে করছেন তিনি। অনুপম খের কে কাঠমান্ডু রাস্তায় দেখতে পেয়ে সেই মেয়েটি ছুটে আসে। তার কাছে কিছু অর্থ সাহায্য চাই। কারন তার পেশা এটা।

সারাদিন ভিক্ষা করে যা উপার্জন হয় সে টাকা দিয়ে তার দিনচলে। রাজস্থানে বাসিন্দা যার নাম আরতী। আরতী কোন দিন স্কুলে যায়নি লেখাপড়া দূরের কথা। কিন্তু যেভাবে নির্ভুল ভাবে অনর্গল ইংরেজিতে কথা বলে চলেছেন তাতে অবাক হয়েছেন অভিনেতা নিজেও। এমনকি গ্রামারের দিক থেকেও নেই বিন্দুমাত্র ভুল। তাই এই সুযোগটি হাতছাড়া করেননি অভিনেতা।পকেট থেকে বের করেছেন নিজের স্মার্টফোনটি। আর সমস্ত ঘটনাটিকে ক্যামেরাব-ন্দি করে শেয়ার করেছেন সোশ্যাল মিডিয়াতে। মুহূর্তের মধ্যে সাড়া ফেলে দিয়েছে সেই ভিডিওটি গোটা সোশ্যাল মিডিয়াতে সেই যুবতীর প্রশংসায় পঞ্চমুখ মানুষেরা।

এমন প্রতিভার সন্ধান পেয়ে তাকে আর হাতছাড়া করেননি অনুপম।মেয়েটিকে দেখে অনুপম খের এতটাই অবাক হয়েছিলেন যে তাকে নেপালের রাস্তায় ওইভাবে ছেড়ে আসতে তার মন সাড়া দেয়নি। অনুপম তাই তার স্কুলে যাওয়ার আগ্রহ লক্ষ্য করে তার পড়াশোনার দায়িত্ব নিয়েছেন। আরতি নিজেও অনুপম খেরের কাছে লেখাপড়া করার এবং স্কুলে যেতে চাওয়ার কাতর আবেদন জানিয়েছে। তার কাছে চেয়েছে সাহায্য। অনুপম খের তাকে আশ্বাস দিয়েছেন, তিনি তার স্কুলে যাওয়ার বন্দোবস্ত করে দেবেন। ইতিমধ্যে ভিডিওটি ব্যাপক পরিমাণে ভাইরাল হয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button