পড়ুয়ারা প্রত্যেক মাসে পাবে 5000 টাকা করে! কাদের দেওয়া হবে এই টাকা? জানুন বিস্তারিত।

নিজস্ব প্রতিবেদন:-কৃতী ছাত্রছাত্রীদের উদ্দেশ্যে পশ্চিমবঙ্গ রাজ্য সরকার একাধিক বৃত্তিমূলক শিক্ষার পাশাপাশি স্কলারশিপের ব্যবস্থা করেছে এবং এই সমস্ত স্কলারশিপ এর আওতায় এসে প্রতিবছরই উপকৃত হচ্ছে লক্ষ লক্ষ পড়ুয়া ।সম্প্রতি রাজ্য সরকারের তরফ থেকে পুনরায় নতুনভাবে আরেকটি স্কলারশিপ জারি করা হয়েছে ।যার নাম স্বামী বিবেকানন্দ স্কলারশিপ ।

যদিও এই স্কলারশিপ নতুন নয় । 2016 সালে প্রথম স্কলারশিপ চালু করা হয় । কিন্তু এই বছরের জন্য আবেদন পদ্ধতি পুনরায় চালু করল রাজ্য সরকার। যার মাধ্যমে মেধাবী ছাত্র-ছাত্রীরা পেতে পারে প্রতিমাসে 5000 টাকা করে সাহায্য।উচ্চ মাধ্যমিক স্তরে বৃত্তির পরিমাণ প্রতি মাসে ১ হাজার টাকা। স্নাতক স্তরে মাসিক ১ হাজার ৫০০ টাকা।

স্নাতকোত্তর স্তরে কলা এবং বাণিজ্য বিভাগের পড়ুয়াদের মাসিক ২ হাজার টাকা এবং বিজ্ঞান ও বৃত্তিমূলক প্রশিক্ষণের ছাত্র-ছাত্রীদের মাসে আড়াই হাজার টাকা করে স্কলারশিপ দেওয়া হয়। ইঞ্জিনিয়ারিং ও মেডিক্যাল স্নাতক স্তরে মাসে দেড় হাজার এবং স্নাতকোত্তর স্তরে ৫ হাজার টাকা করে বৃত্তি দেয় রাজ্য সরকার। এছাড়াও এমফিল-এর জন্য মাসে পাঁচ হাজার টাকা এবং পিএইচ. ডি-র জন্য মাসে আট হাজার টাকা।

পলিটেকনিকের পড়ুয়ারা পাবেন প্রতি মাসে দেড় হাজার টাকা।প্রসঙ্গত উল্লেখ্য এই স্কলারশিপের জন্য প্রতিবছর প্রায় 7 লক্ষ 62 হাজার কোটি টাকার বেশি বরাদ্দ করা হয়। এই বৃত্তির জন্য অনলাইনে আবেদন করতে রাজ্য সরকারের ওয়েবসাইট আবেদন করতে হবে তাদের ওয়েবসাইট হলো www.svmcm.wbmdfc.co.in । বৃত্তি পেতে রেজিস্ট্রেশন করতে হবে। এরপর বেছে নিতে হবে সংশ্লিষ্ট কোর্স।

তারপর জন্মের শংসাপত্র, শেষ পরীক্ষার অ্যাডমিট, মার্কশিট, আধার কার্ড, পারিবারিক আয়ের শংসাপত্র স্ক্যান করে দিতে হবে। এছাড়া ব্যাঙ্কের যাবতীয় তথ্য এবং সংশ্লিষ্ট আবেদনকারী নতুন যে কোর্সে ভর্তি হয়েছেন তার রসিদও জমা করতে হবে।এই স্কলারশিপের আবেদন করার জন্য শেষ সময় হচ্ছে আগামী বছর 15 ই ফেব্রুয়ারি অর্থাৎ 15 ফেব্রুয়ারির মধ্যে আপনাকে আবেদন করতে হবে যদি আপনি স্কলারশিপ এ নিজেকে অন্তর্ভুক্ত করতে চান।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button