সামান্য পুঁজি নিয়ে শুরু করুন এই ব্যবসা, সরকার করবে সাহায্য! লাভের পরিমাণ অনেক বেশি! রইল বিস্তারিত।

নিজস্ব প্রতিবেদন:-পূর্ববর্তী সময়ে মানুষের প্রধান ঝোঁক চাকরির প্রতি থাকলেও বর্তমানে বেশিরভাগ মানুষ ব্যবসার দিকে ঝুঁকেছেন। বিশেষত বর্তমানে সরকারি চাকরি একেবারেই কঠিন বিষয়। তবে পরিমানমতো মূলধন এবং ব্যবসায়িক বুদ্ধি থাকলে খুব সহজেই একটি লাভবান ব্যবসা দাঁড় করানো যেতে পারে।

আজকের এই বিশেষ প্রতিবেদন এর মাধ্যমে আমরা যুগোপযোগী ব্যবসা নিয়ে আলোচনা করবো যা থেকে মোটা অংকের টাকা খুব সহজেই আপনারা উপার্জন করতে পারেন।প্রসঙ্গত প্রথমেই বলে রাখি দূষণ বৃদ্ধির কারণে প্লাস্টিক নিষিদ্ধ করে দিয়েছে সরকার।তাই এই সময়ে ডিসপোজেবল পেপার কাপ এর চাহিদা অত্যধিক।কারণ এই কাগজ কাপ এর সাহায্যে দূষণ যেমন অত্যধিক কম হয় তেমনি ব্যবসাটিও লাভজনক।

খুব কম মূলধনেই এই ব্যবসা আপনারা শুরু করতে পারেন। এমনকি এই ব্যবসা শুরু করার জন্য সরকার আপনাকে মুদ্রা স্কিমের অধীনে সাহায্য করবে। প্রসঙ্গত মুদ্রা ঋণের অধীনের সরকার সুদের উপর ভর্তুকি দিয়ে থাকে। এবার আসুন জেনে নেওয়া যাক এই ব্যবসা শুরু করার জন্য আপনার কি কি প্রয়োজন হবে।

যদি আপনি এই ব্যবসাটি শুরু করতে চান সে ক্ষেত্রে পেপার কাপ তৈরির জন্য একটি মেশিন লাগবে। এই মেশিনটি আপনি দিল্লি, হায়দ্রাবাদ,আগ্রা এবং আহমেদাবাদ সহ দেশের বিভিন্ন বড় শহরেই পেয়ে যাবেন। এছাড়াও প্রয়োজন হবে 500 বর্গফুট এলাকা, যন্ত্রপাতি, নানান ধরনের সরঞ্জাম, রং, বিদ্যুৎ এবং ইন্সটলেশন।

সব মিলিয়ে খুব বড়জোর আপনার 10.70 লক্ষ্য টাকা বিনিয়োগ করতে হতে পারে। পাশাপাশি আপনি যদি ব্যবসার জন্য কর্মী রেখে থাকেন তাহলে মাসিক ভিত্তিতে আপনার মোটামুটি 35,000 টাকার কাছাকাছি খরচ হবে। এবার আসা যাক ব্যবসা থেকে পাওয়া লাভের কথায়।

যদি আপনি বছরে মোট 300 দিন কাজ করে থাকেন এবং মোটামুটি 2.20 কোটি পেপার কাপ তৈরি করতে সক্ষম হয়ে থাকেন সেক্ষেত্রে প্রতিটি কাপ আপনি 30 পয়সা বা তার আশেপাশে দামে বিক্রি করতে পারবেন।খুব সহজেই এই ব্যবসা থেকে একটি বড় অঙ্কের টাকা আপনারা উপার্জন করে নিতে পারবেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button