সমাজ সাথী? নাকি লেবার কার্ড? নতুন বছরে কোন কার্ড করালে পাবেন বেশি সুবিধা? জেনে নিন বিস্তারিত।

নিজস্ব প্রতিবেদন:-নতুন বছর শুরু হয়ে গেছে এবং নতুন বছরে একাধিক প্রকল্প জারি করেছে পশ্চিমবঙ্গ রাজ্য সরকার । ইতিমধ্যে আপনারা হয়তো জানেন যে পশ্চিমবঙ্গ রাজ্য সরকারের তরফ থেকে জারি করা লেবার কার্ড ইতিমধ্যে জনপ্রিয়তা পেতে শুরু করেছে ।বলা বাহুল্য এর প্রথম সূচনা করেছিল কেন্দ্রীয় সরকার ধীরে ধীরে ভারতবর্ষের প্রতিটি শহরে এবং রাজ্যে ছড়িয়ে পড়েছে ।

তবে পশ্চিমবঙ্গ রাজ্য সরকারের তরফ থেকে আরও একটি প্রকল্প জারি করা হয়েছে যার নাম সমাজ সাথী প্রকল্প ।আজকের এই প্রতিবেদনের মাধ্যমে আমরা জানবো যে সমাজ সাথী প্রকল্প এবং লেবার কার্ড এর মধ্যে কি কি পার্থক্য রয়েছে এবং কোন গানটি আপনার জন্য সুবিধাজনক।

লেবার কার্ড এর সুবিধা :-আপনার কাছে যদি একটি লেবার কার্ড থেকে থাকে তাহলে আপনি দুর্ঘটনা হলে আপনি এক হাজার থেকে 5 হাজার টাকা পর্যন্ত ক্ষতিপূরণ পেতে পারেন ।

অস্ত্রোপচারের জন্য 30 হাজার টাকা ক্ষতিপূরণ পেতে পারেন।

দুর্ঘটনায় অসমর্থতা হলে 25 হাজার টাকা পর্যন্ত ক্ষতিপূরণ পেতে পারেন ।

নির্মাণ কর্মীর মৃত্যু হলে 30 হাজার টাকা এবং ঘটনাস্থলে মৃত্যু হলে এক লক্ষ টাকা ক্ষতিপূরণ দেয়া হয় তার পরিবারকে।

যক্ষা রোগ নিরাময়ের জন্য 3000 টাকা দেওয়া হয় ।

নির্মাণ কর্মীর কোন কারণে অসুস্থতার জন্য তার পরিবারকে এককালীন প্রতিবছর 10 হাজার টাকা করে চিকিৎসা-সুবিধা প্রয়োগ করা হয় এছাড়া আরও একাধিক সুবিধা রয়েছে এই লেবার কার্ড এ ।

সমাজ সাথী প্রকল্পে কার্ডের সুবিধা:-
১)এই প্রকল্পের মাধ্যমে স্বনির্ভর গোষ্ঠীর এককালীন 2 লক্ষ টাকা পেয়ে যাবে দুর্ঘটনা ঘটলে
২)তার পাশাপাশি প্রতিদিন হাসপাতালে দে কেয়ার এজন্য 5000 টাকা সর্বোচ্চ খরচ পাবে বিনামূল্যে ।

৩)এমনকি হাসপাতালে অস্ত্রোপচারের জন্য 60 হাজার টাকা বিনামূল্যে চিকিৎসা ব্যবস্থা পাবে ।
৪) যদি কোনো কারণে স্বনির্ভর গোষ্ঠীর কোনো সদস্যের মৃত্যু ঘটে থাকে সস্মান কর্মকাণ্ড করার জন্য আড়াই হাজার টাকা দেওয়া হবে ।
৫)যদি কোন কারণে স্বনির্ভর গোষ্ঠীর মৃত্যু ঘটে তাহলে তার পরিবারের পড়াশোনা করার জন্য এককালীন 25 হাজার টাকা করে দেওয়া হয়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button