দারুন কায়দায় এই ঘরোয়া পদ্ধতিতে ‘বেগুন ভর্তা’ রেসিপি একবার খেলে সারাজীবন মুখে লেগে থাকবে, রইলো পদ্ধতি!

নিজস্ব প্রতিবেদন :- সাধারণত প্রতিদিন একই রকমের সবজি দিয়ে রান্না করে খাবারের প্রতি এ-কঘে-য়েমি চলে আসে অনেক। তাই প্রতিদিনের রান্নায় একটু পরিবর্তন আনা দরকার। খুব সামান্য পরিবর্তন আপনার স্বাদের বিশাল পরিবর্তন ঘটাতে পারে। বেগুন ভাজা সাধারণত আমরা প্রায় অনেকেই ভালোবাসি। কিন্তু এই বেগুন ভাজা কেই যদি একটু পরিবর্তন করে রান্না করা হয়? আজকে আমরা এরকমই একটি বেগুনের রেসিপি আপনাদের সাথে শেয়ার করব।

আপনাকে এই মুহূর্তে যে রেসিপির কথা বলতে চলেছি সেটি আপনি বাড়িতে গরম ভাতের সাথে বা রাতের বেলায় রুটি সাথে কিন্তু পরিবেশন করতে পারেন । অনেকেই এই ধরনের খাবার খেতে অত্যন্ত বেশি পছন্দ করেন । এবং এই রেসিপিটি নাম হল বেগুনের ভর্তা । এর আগে বিভিন্ন রেসিপি আলুর ভর্তা কিভাবে সুস্বাদু করে রান্না করা যায় তা তুলে ধরা হয়েছিল । তবে আজকে আলু নয় বরং তার জায়গায় রয়েছে বেগুন । আসুন দেখে নেব কিভাবে কম সময়ে তৈরি করা যাবে এই রেসিপিটি কে।

প্রথমে বেগুনটি ভালো করে ধুয়ে নিতে হবে । এবং তার মধ্যে সরষের তেল ভালো করে মাখিয়ে নিতে হবে । তারপর বেগুনের গায়ে ছু-রি দিয়ে তিন থেকে চারটি অংশে কা-ট লাগিয়ে নিতে হবে । অর্থ সামান্য পরিমাণ কেটে নিতে হবে লম্বালম্বি করে । তারপর সেই কেটে রাখা জায়গার মধ্যে ঢুকিয়ে দিতে হবে খোসা সমেত তিন থেকে চারটি রসুন ও কাঁচালঙ্কা । এরপর বেগুন কে তারজা-লির মধ্যে দিতে হবে এবং আছে সেটিকে সেদ্ধ হতে দিতে হবে । তার সাথে সাথে আপনি টমেটো সেদ্ধ হতে পারেন।

অপরদিকে একটি পাত্রে কিছুটা পরিমাণ তেল নিতে হবে। এবং তার মধ্যে দিয়ে দিতে হবে আগে থেকে কুচিয়ে রাখা পেঁয়াজ এবং তার মধ্যে দিয়ে দেবো আদর পেস্ট এক চামচ এবং তার মতো হলুদ গুঁড়ো নুন কাশ্মীরি লঙ্কা এবং ধনেগুঁড়ো । এরপর যে বেগুন এবং টমেটো আমরা গ্যাসের আচে পু-ড়িয়েছিলাম সেগু-লিকে আগে থেকে আমরা ঠান্ডা হওয়ার পর ভালো করে মাখিয়ে রেখেছিলাম অর্থাৎ ছাল ছাড়িয়ে নিয়েছিলেন । সেই ছাল ছাড়ানো মিশ্রনটিকে দিতে হবে কষিয়ে নেওয়া মশলার মধ্যে । তারপর কিছুক্ষণ ধরে অপেক্ষা করার পর ভালো করে নেড়ে চেড়ে নিলেই তৈরি হবে সুস্বাদু এই বেগুনের ভর্তা।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button