প্রধানমন্ত্রীর নতুন ‘সুকন্যা সমৃদ্ধি যোজনা’! মাসে মাত্র 250 টাকা করে জমা দিয়ে পান 10 লক্ষ টাকা রিটার্ন! রইল বিস্তারিত।

নিজস্ব প্রতিবেদন:-আগেকার যুগে যদি কোন বাড়িতে কন্যাসন্তান জন্ম গ্রহণ করতো তাহলে একটা অতিরিক্ত চিন্তা ভাবনা সৃষ্টি হতো অভিভাবকদের কপালে ।কারণ তাদেরকে পড়াশোনা করানো তার পাশাপাশি বড় হলে বিয়ে দেওয়ার মতন খরচ অনেকখানি ছিল ।যার ফলে অনেকেই হয়তো কন্যা সন্তান হলে তেমন খুশি হতো না ।কিন্তু বর্তমানে সেই অবস্থা পরিবর্তন ঘটেছে সম্পূর্ণ রকম হবে।

পাশাপাশি সরকারের একাধিক সুযোগ-সুবিধা পাওয়া যাচ্ছে কন্যা সন্তানদের জন্য । আপনার বাড়িতে যদি 10 বছর নিচে কোন কন্যা সন্তান থেকে থাকে তাহলে সরকারের এই প্রকল্পে নিজেদের নাম অর্থাৎ নিজেদের কন্যা সন্তানের নাম অন্তর্ভুক্ত করতে পারেন ।বিয়ের বয়সের পাবেন অতিরিক্ত বেশ কিছু টাকা ।

এই প্রকল্পের মাধ্যমে আপনি সর্বনিম্ন ২৫০ টাকা এবং সর্বোচ্চ বার্ষিক ১.৫ লক্ষ টাকা জমা করতে পারেন ।এখানে আপনি অন্যান্য ব্যাংকের থেকে অধিক পরিমাণে সুদ পাবেন এবং এখানে সুদের পরিমাণ ৭.৬% । দীর্ঘ ১৫ বছর ধরে আপনাকে এই প্রকল্পের টাকা জমা করতে হবে এবং তারপরে আরও অতিরিক্ত ৬ বছর লক ইন পিরিয়ড এর মধ্যে সে টাকা জমা রাখতে হবে। তবে আপনি সম্পূর্ণ টাকা সুদ সমেত ফেরত পাবেন।

যত কম বয়সে আপনি আপনার কন্যার জন্য এই অ্যাকাউন্ট খুলবেন ততই কিন্তু তাড়াতাড়ি অতিরিক্ত সুবিধা পাবেন।একটি কন্যা সন্তানের জন্য একটি অ্যাকাউন্ট আপনি খুলতে পারেন। তবে যদি আপনার পরিবারের একাধিক কন্যা সন্তান থেকে থাকে তাহলে সেই পরিবারের ক্ষেত্রে সর্বোচ্চ দুইটি একাউন্ট খুলতে পারবেন।

কন্যা সন্তানের বয়স ১৮ বছর বা ২১ বছর হয়ে যাওয়ার পর যদি বিশেষ কোনো প্রয়োজনে টাকার দরকার পড়ে যেমন বিয়ে কিংবা উচ্চশিক্ষায় শিক্ষিত হওয়ার জন্য তাহলে সঞ্চিত অর্থ থেকে ৫০% টাকা আপনি তুলতে পারবেন।এই স্কিমে প্রতি মাসে ৩০০০ টাকা জমা করলে বছরে ৩৬০০০ টাকা হবে৷ ১৪ বছর পর ৭.৬ শতাংশ বার্ষিক কম্পাউন্ডিং ইন্টারেস্ট হিসেবে আপনি পেয়ে যাবেন ৯,১১,৫৭৪ টাকা ৷

আমরা আগেই বলেছিলাম অতিরিক্ত আরো ৬ বছর লক-ইন পিরিয়ডের মধ্যে সে টাকা সঞ্চিত রাখতে হবে অর্থাৎ ১৫ বছরের পর আরও অতিরিক্ত ৬ বছর হলে ২১ বছর বয়সে ম্যাচিউরিটিতে এই টাকা প্রায় ১৫,২২,২২১ টাকা হয় ৷ অর্থাৎ মেয়ের উচ্চ শিক্ষা হোক বা মেয়ের নামে কোনো সম্পত্তি ক্রয় হোক, দুইই নির্দ্বিধায় করতে পারবেন।প্রসঙ্গত উল্লেখ্য এই সুকন্যা সমৃদ্ধি যোজনা একাউন্ট আপনি যে কোনো সরকারি বা বেসরকারি ব্যাংকে অনায়াসে খুলতে পারবেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button