এই সাপের লেজের বাড়ি কি সত্যিই মারাত্মক বিপজ্জনক? জানুন আসল রহস্য!

নিজস্ব প্রতিবেদন:সোশ্যাল মিডিয়ার মাধ্যমে আমরা এমন অনেক দৃশ্য দেখতে পাই যা আপাতদৃষ্টিতে সহজে খালি চোখে দেখা যায় না। বর্তমানে নেট মাধ্যম মানুষের জীবনের একটি অবিচ্ছেদ্য অঙ্গ। শিশু থেকে শুরু করে বয়স্ক সকলেই সোশ্যাল মিডিয়ার সঙ্গে আজকাল যুক্ত হয়ে পড়েছেন।

সময়ের সঙ্গে পাল্লা দিয়ে তৃতীয় বিশ্বের দেশগুলোতে নেট মাধ্যমের ব্যবহারকারীর সংখ্যা ক্রমশই বৃদ্ধি পেয়ে চলেছে। যেমন বিগত বেশ কয়েকদিন ধরেই ফেসবুক এবং ইন্সট্রাগ্রাম গুলিতে ভাইরাল ভিডিওর সংখ্যা বাড়ছে।প্রধানত লাইক এবং কমেন্ট সংখ্যার উপর ভিত্তি করেই কোন ভিডিও বা ফটো কতটা ভাইরাল হয়েছে তা নির্ধারণ করা হয়।

দিন কয়েক আগে নেট মাধ্যমে একটি সাপের ভিডিও ভাইরাল হয়ে উঠেছে। ভাইরাল এই ভিডিওটিতে দেখা যাচ্ছে একটি বাড়িতে শোবার ঘরের মধ্যে একটি rat snake বা দাঁড়াশ সাপ আটকে গিয়েছে।এরা প্রধানত ইঁদুর খেয়ে থাকে তাই এদের এরকম নাম দেওয়া হয়েছে।

বেশ কিছুক্ষণ চেষ্টা করার পর এই সাপটিকে উদ্ধার করেন সমিরন বারিক নামের এক সর্পউদ্ধারকারী যুবক। জানিয়ে রাখি এই সাপগুলি কৃষকদের অত্যন্ত বন্ধু হয়ে থাকে। কারণ কৃষি জমিতে থাকা পোকামাকর থেকে শুরু করে সবকিছুই এরা খেয়ে ফেলে।

তবে এই ধরনের সাপ গোখরো সাপের মতো দেখতে হলেও বিষধর হয় না। ভাইরাল এই ভিডিওতে অত্যন্ত দক্ষতার সাথে সাপটি উদ্ধার করেছেন সমিরন বারিক। তবে সাপটি অত্যন্ত শক্তিশালী হওয়ায় তাকে উদ্ধার করার সময় যুবককে বেশ অসুবিধার সম্মুখীন হতে হচ্ছে।

এমনকি বেশ কয়েকবার সাপটি লেজ দিয়ে ওই যুবককে মুখের মধ্যে সপাটে বাড়ি মারে।বলা হয় এই সাপের লেজের বাড়ি নাকি অত্যন্ত বিপদজনক।প্রায় 7 মাস আগে তার নিজস্ব ইউটিউব চ্যানেল থেকেই এই ভিডিওটি শেয়ার করেছেন তিনি। ইতিমধ্যেই প্রায় 60 হাজার মানুষ ভিডিওটি দেখে নিয়েছেন এবং ভিডিওটি পছন্দ করেছেন প্রায় দেড় হাজার মানুষ। চাইলে আপনারাও দেখে নিতে পারেন সেই ভিডিও।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button