অবিশ্বাস্য ঘটনা! এরোপ্লেনের চাকায় বসেই লন্ডন পাড়ি দিলেন দুই ভাই! ঝড়ের বেগে ভাইরাল ভিডিও!

নিজস্ব প্রতিবেদন:প্লেনের চাকায় বসে লন্ডন পাড়ি দিতে গিয়ে ভাইরাল হলেন দুই ভাই।ঘটনাটি শুনতে খুব অদ্ভুত লাগলেও একেবারেই সত্যি। জানা যাচ্ছে 1986 সালে পাঞ্জাবে দুই ভাই থাকতেন। তাদের মধ্যে একজনের নাম প্রদীপ সাইনি, অপর জনের নাম বিজয় সাইনি। প্রদীপের বয়স ছিল 23 বছর এবং বিজয়ের বয়স 19 বছর।তারা কোন কারনে লুকিয়ে ভারতের বাইরে বিদেশে যেতে চেয়েছিলেন।

কিন্তু এজেন্ট এর সাথে কথা বলার পরে তারা জানতে পারেন কোনো রকমের বৈধ কাগজ ছাড়া সরাসরি তারা ভারতের বাইরে বিদেশে যেতে পারবেন না। কিন্তু এরপরেও ওই দুই ভাই থেমে থাকেননি। তারা ওই এজেন্টের সঙ্গে কথা বলে এবং প্লেনে লাগেজ লুকিয়ে রাখার ব্যবস্থা করার কথা জানায়।

প্রথমে ওই এজেন্ট রাজি হয়ে গেলেও দিনের পর দিন কেটে যাওয়া সত্ত্বেও দুই ভাইয়ের সঙ্গে ওই এজেন্ট আর যোগাযোগ করেনি।এমতাবস্থায় আর কোন উপায় না থাকায় নিজেরাই কিছু করার সিদ্ধান্ত নিয়ে দুই ভাই দিল্লি চলে আসেন এবং ইন্দিরা গান্ধী আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর এর চারপাশে নজর রাখেন।

যেহেতু তাদের কাছে বৈধ কাগজ ছিল না তাই প্রায় এক মাসের ওপর বিমানবন্দরের ঢোকার জায়গা রেইকি করেন তারা এবং বিমানে আসা-যাওয়া সূচি সম্পর্কে যাবতীয় তথ্য জোগাড় করে নেন।

সবথেকে আশ্চর্যকর ঘটনা এরপর ঘটে।একদিন দুই ভাই বিমানবন্দরের ভেতরে প্রবেশ করে বিমানের রানওয়েতে গিয়ে বিমানের চাকা বা ল্যান্ডিং গিয়ারের পাশে থাকা ছোট জায়গায় উঠে পড়ে। পুরো সময়টিই তারা এই ভাবেই যাত্রা করেছিল।এরপর প্লেনটি লন্ডন বিমানবন্দরে অবতরণ করলে কর্মীরা তাদের দুজনকে অসুস্থ অবস্থায় উদ্ধার করেন।

যদিও পরবর্তীতে প্রদীপ সুস্থ হয়ে ওঠেন কিন্তু তার ভাই বিজয়ের শরীরে অক্সিজেন কম হওয়ার কারণে তার মৃত্যু ঘটে। শেষমেষ প্রদীপ সাইনি বলে ওই যুবককে লন্ডন পুলিশ অ্যারেস্ট করতে বাধ্য হয়। সোশ্যাল মিডিয়ায় এই ঘটনা ভাইরাল হওয়ার পর থেকেই রীতিমতো আশ্চর্য হয়ে গিয়েছেন সকলে। এরকম ঘটনা যে ঘটতে পারে তা প্রায় বেশিরভাগ মানুষেরই ধারণার বাইরে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button