আকাশে প্রতি কিমি পথ চলতে কত লিটার জ্বালানি খরচ হয় উড়োজাহাজে? জানলে অবাক হবেন!

নিজস্ব প্রতিবেদন:-বর্তমানে এক দেশ থেকে অন্য দেশে যেতে গেলে বা এক রাজ্য থেকে অন্য রাজ্যে যাতায়াতের জন্য সাধারণত আমরা বিমানের ব্যবহার করে থাকি । বর্তমানের এই বিমানের ব্যবস্থা অত্যধিক মাত্রায় উন্নতি হলেও আগেকার যুগের বিমান কিন্তু ততটা পরিমাণে উন্নত ছিল না । প্রথমবারের মতো আকাশে উড়েছিল 1903 সালে এবং আমেরিকার দুই ভাই এর এই আবিষ্কার রীতিমত তোলপাড় করে দিয়েছিল বিশ্ব কে ।

তবে অনেকেই হয়তো ভাবেন যে বিমান পেট্রোল কিংবা ডিজেলের উপর নির্ভর করে চলাচল করে ঘটনাটি কিন্তু সম্পূর্ণ রকম ভাবে মিথ্যা বিভিন্ন ধরনের জ্বালানি রয়েছে সেগুলি কি ব্যবহার করে বিমান চালনা করা হয় ।তার পাশাপাশি বিমানের মধ্যে এল টিউব থেকে থাকে যার ওপর নির্ভর করে যে কোন বিমান কতটা পরিমাণে উপর চলাচল করতে পারে ।আজকের প্রতিবেদন আপনাদেরকে জানাবো যে কতটা জ্বালানি খরচ করে একবার উড়ানে ।

উড়োজাহাজ বোয়িং-747 এ কেরোসিন তেল জ্বালানি হিসেবে ব্যবহার করা হয়ে থাকে।বোয়িং-747এ ফ্রিজিং পয়েন্ট হলো মাইনাস 40℃ থেকে মাইনাস 48℃ পর্যন্ত থাকবে। এটি হয় এলটিটিউবএ জমে যায় না। প্রতি ৪ সেকেন্ডে ১ লিটার করে তেল পোড়ে। প্রতি ১ সিগনেচার লিটার করে জ্বালানি খরচ হয়।

এক কিলোমিটার দূরত্বে ১২ লিটার তেলের দরকার হয়। একসাথে ৪৫৬ জন যাত্রী সফর করতে পারবে এই উড়োজাহাজে। ফ্লাইট যদি ১০ ঘন্টার বেশি হয়ে যায়, তাহলে উড়োজাহাজটি ১ লাখ ৫০ লিটার তেলের প্রয়োজন হবে।ঠিক এই কারণের জন্যই বিমানের ভাড়া অন্যান্য যানবাহনে তুলনায় অনেক খানি বেশি হয় ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button