ফিক্স ডিপোজিট করানো আছে অথবা করতে চাইছেন? তাহলে আপনার জন্য বড় খবর! বদলাচ্ছে বেশকিছু নিয়ম! জানুন বিস্তারিত।

নিজস্ব প্রতিবেদন:-এবার ব্যাংকিং সেক্টরে একাধিক পরিবর্তন নিয়ে এলো ভারতের তাবড় তাবড় কিছু সরকারি ব্যাংক । এ তালিকায় রয়েছে এইচডিএফসি স্টেট ব্যাঙ্ক অফ ইন্ডিয়া এবং আইসিআইসি ব্যাংক । স্থায়ী আমানতের হার বৃদ্ধি করা ছিল এর প্রাথমিক লক্ষণ । কিন্তু কেন হঠাৎ করেই সিদ্ধান্ত নিতে বাধ্য হলো তারা সে বিষয়ে একাধিক প্রশ্ন উঠেছে ।

তবে সূত্র মারফত এমনটা জানা যাচ্ছে যে গ্রাহকেরা সরকারি ব্যাংকের তুলনায় বেসরকারি ব্যাংকে বেশি পরিমাণ টাকা রাখছে গ্রাহকরা । তার প্রধান একটি কারণ হচ্ছে বেসরকারি ব্যাংক স্থায়ী আমানত কারীদের হার বৃদ্ধি করে চলেছে ।শুধুমাত্র এক দফায় নয়, সম্প্রতি এই লক্ষ্যে স্টেট ব্যাঙ্ক অফ ইন্ডিয়া এই সপ্তাহের শুরুতে ফিক্সড ডিপোজিটে দু’বার আমানতের হার বাড়িয়েছে।

স্থায়ী আমানতের হার বৃদ্ধির কারণ হিসাবে ব্যাঙ্কগুলির দাবি, ইতিমধ্যেই ঋণদাতারা নন-ব্যাঙ্কিং আর্থিক সংস্থাগুলির দিকে ঝুঁকে পড়ছে। ফলে সরকারি ব্যাঙ্কের কোষাগার প্রায় তলানিতে। এ বিষয়ে সম্প্রতি নন- ব্যাঙ্ক ঋণদাতা সংস্থাগুলির এক উচ্চপদস্থ কর্মকর্তা সাফ জানিয়েছেন, বর্তমানে আমানতকারীদের টাকায় চলতে থাকা নন-ব্যাঙ্কিং আর্থিক সংস্থাগুলি আমানতের ও সুদের হার বৃদ্ধি করেছে একাধিক বার।

কারণ ওই সংস্থাগুলি মূলত তাদের আর্থিক পরিকাঠামো মজবুত করতে সর্বদা উদ্যোগী। এর ফলে আমানত বৃদ্ধিতে নন-ব্যাংকিং সেক্টরগুলোর এক্ষেত্রে অনেকখানি পিছিয়ে পড়ছে ।সম্প্রতি এসবিআই তাদের আমানতের হার ১০ বেসিস পয়েন্ট বাড়িয়েছে। পাশাপাশি আইসিআইসিআই ব্যাঙ্ক, এইচডিএফসি ব্যাঙ্ক, কানাড়া ব্যাঙ্ক এবং অ্যাক্সিস ব্যাঙ্কও একই হার বৃদ্ধি করেছে।

এমনকী এসবিআই দু’কোটি টাকার নিচে স্থায়ী আমানতে সুদের হার বাড়িয়েছে।দেশের সবথেকে বড় রাষ্ট্রায়ত্ত ব্যাংকের এই সিদ্ধান্তকে সমর্থন করেছে রিজার্ভ ব্যাঙ্ক অফ ইন্ডিয়া কারণ এই চক্রটি সাধারণত কেন্দ্রীয় সরকার এবং রিজার্ভ ব্যাঙ্ক অফ ইন্ডিয়ার দ্বারা পরিচালিত হয় ।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button