রেশন কার্ড থাকলেই দারুণ সুযোগ! পাবেন 1,20,000 টাকার সরকারি বাড়ি! রইল বিস্তারিত।

নিজস্ব প্রতিবেদন:-আমাদের দেশ ভারত বর্ষ বিশাল জনসংখ্যা বিশিষ্ট এবং এই বিশাল জনসংখ্যা বিশিষ্ট দেশে অধিকাংশ মানুষ দারিদ্র্যসীমার নিচে বসবাস করে । বা যাদের মাসিক আয় অত্যন্ত নগণ্য । সেই সমস্ত মানুষদের কে পাকা বাড়ি তৈরি করার জন্য আবাস প্লাস যোজনা সূচনা করেছেন প্রধানমন্ত্রীর নরেন্দ্র মোদির ।

আবাস প্লাস যোজনায় নিজের নামকে নথিভূক্ত করতে আজকেই আবেদন করুন ।আমাদের রাজ্য তথা গোটা ভারতবর্ষে এমন অনেক পরিবার রয়েছে যাদের মাথার ওপর একটা পাকাপোক্ত ছাদ নেই ।মাটির ঘরের মধ্যে দিনের-পর-দিন বসবাস করেছে চান তারা ।যার ফলে দুর্যোগের শিকার হচ্ছে প্রতিনিয়ত সেই সমস্ত পরিবারগু-লি।

তাদের কথা চিন্তা ভাবনা করে প্রধানমন্ত্রীর নরেন্দ্র মোদী এবং বিভিন্ন রাজ্য সরকার মিলিতভাবে পাকাপোক্ত বাড়ি তৈরি করে দেওয়ার একটি পরিকল্পনা গ্রহণ করেছে। যদিও এটি নতুন নয় ।বহুদিন আগে থেকেই চলে আসছে এই কর্মসূচি ।

এবার সাধারণ মধ্যবিত্ত পরিবারের মানুষদের মধ্যে প্রশ্ন আছে যে এই প্রকল্পে সুযোগ-সুবিধা পেতে গেলে কি ধরনের রেশন কার্ড থাকা বাধ্যতামূলক সে উত্তরে জানানো হয়েছে যে এই প্রকল্পের সুযোগ-সুবিধা পেতে গেলে অর্থাৎ বাংলার আবাস যোজনা আবাস যোজনা সুযোগ-সুবিধা পেতে গেলে প্রার্থীর অতি অবশ্যই SPHH , AAY, RKSY-1 RKSY-2 PHH ক্যাটাগরির রেশন কার্ড থাকা জরুরি।

সাথে নিয়ে যেতে হবে আধার কার্ডের জেরক্স, ভোটার কার্ডের জেরক্স, ব্যাংকের পাশবইয়ের জেরক্স, পাসপোর্ট সাইজের 4 কপি ছবি। প্রসঙ্গত উল্লেখ্য rksy-2 রেশন কার্ডটি থাকার পর যদি কোনো উচ্চপদস্থ কর্মচারী মনে করে যে আপনার আবাস যোজনা ঘর পাওয়া দরকার রয়েছে তবে কিন্তু আপনি পাবেন পাবেন না।

আবাস প্লাস যোজনা তিন কিস্তিতে মোটা ১ লক্ষ্য ৩০ হাজার টাকা দেওয়া হয় । প্রথম কিস্তিতে ৬০,০০০ টাকা দ্বিতীয় কিস্তিতে আরো ৬০ হাজার টাকা এবং তৃতীয় কিস্তিতে ১০,০০০ টাকা দেওয়া হয় । তবে আপনার যদি লেবার কার্ড থেকে থাকে তাহলে অতিরিক্ত আরো ১৯ হাজার টাকা পাবেন অর্থাৎ সর্বমোট ১ লক্ষ ৪৯ হাজার টাকা পাবেন । আপনি এই আবাস যোজনা আবেদন করার জন্য আধার কার্ডের জেরক্স ভোটার কার্ড ব্যাংকের পাস বইয়ের জেরক্স নিয়ে আবেদন করতে হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button