জেসিবি দিয়ে মাটি খুঁড়তেই বেরিয়ে এলো বিশালাকার অজগর সাপ! তারপর যা হলো! মুহূর্তে ভাইরাল ভিডিও।

নিজস্ব প্রতিবেদন:নেট মাধ্যমে চোখ রাখলেই আমরা প্রতিনিয়ত নানান ধরনের আশ্চর্য বিষয় দেখতে পারি। বর্তমান যুগে মানুষের সাথে যোগাযোগ বজায় রাখার জন্য সোশ্যাল মিডিয়া একটি অন্যতম মাধ্যম। সময়ের সঙ্গে সঙ্গেই নেট দুনিয়ার প্রভাব মানুষের মধ্যে ক্রমাগত বেড়েই চলেছে।

পূর্ববর্তী সময়ে মানুষ কোন রকমের খবর বা ঘটনা জানার জন্য সাধারণত সংবাদপত্র, টেলিভিশন এর উপর নির্ভর করে থাকতেন। কিন্তু বর্তমানে তা পরিবর্তিত হয়েছে সোশ্যাল মিডিয়ায়।

বিভিন্ন অনলাইন নিউজ পোর্টাল গুলিতে খুব দ্রুত নানান ধরনের খবর ভাইরাল হয়ে ওঠে। এছাড়াও ফেসবুক, হোয়াটসঅ্যাপ, ইনস্টাগ্রামের মতো প্লাটফর্ম গুলি তো রয়েছেই। আজকের এই বিশেষ প্রতিবেদনে আমরা এমনই একটি ভিডিও নিয়ে আলোচনা করতে চলেছি।

ভাইরাল এই ভিডিওটি সাপ সংক্রান্ত। এই বিষধর প্রজাতিটিকে সবাই ভয় পেয়ে থাকেন। যদিও সব সাপ বিষধর প্রজাতির হয় না। তবুও মানুষ এটিকে স্বভাবগত কারনে ভয় পেয়ে থাকেন। সম্প্রতি সোশ্যাল মিডিয়ায় একটি ভাইরাল ভিডিওতে দেখা যাচ্ছে একটি জায়গায় জেসিবি দিয়ে মাটি খোঁড়া হচ্ছিল। আচমকাই মাটি খোড়ার সময় সেখান থেকে তিনটি বিশালাকৃতির অজগর সাপ বেরিয়ে আসে।সাপগুলিকে দেখে উপস্থিত সকলেই অবাক হয়ে যান।

প্রসঙ্গত অজগর হচ্ছে পৃথিবীর অন্যতম বৃহত্তম সাপ।এরা শিকারকে জোরে পেঁচিয়ে/পরিবেষ্টন করে এরা তার দম বন্ধ করে। এরা শিকারকে সাধারনত মাথার দিক থেকে আস্ত গিলে খাওয়া শুরু করে। কারণ, এতে শিকারের বাধা দেয়ার ক্ষমতা কমে যায়। শিকার হজম করতে তাদের কয়েকদিন সময় লাগে।অজগরকে ময়াল নামেও ডাকা হয়। এরা বিষহীন আদিম সাপ।

ওই জায়গাতে সাপটিকে দেখতে পেয়ে স্থানীয় সাপ উদ্ধারকারী যুবক মুরলিওয়ালে হৌসলাকে খবর দেওয়া হয়। তিনি ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে দীর্ঘ সময়ের চেষ্টার পর সাপগুলিকে উদ্ধার করে নিয়ে যান। জানা যাচ্ছে এই ভিডিওটি উত্তর প্রদেশের একটি গ্রামের।

ঐ যুবকটি নিজের ইউটিউব চ্যানেল থেকেই এই ভিডিওটি শেয়ার করেছেন। আড়াই মিলিয়ন মানুষ এই ভিডিওটি দেখে নিয়েছেন ইতিমধ্যেই। ভিডিওটি পছন্দ করেছেন 38 হাজার মানুষ। যদি প্রতিবেদনটি ভালো লেগে থাকে সেক্ষেত্রে অবশ্যই এই ভিডিওটি দেখে নিতে ভুলবেন না।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button