রাজ্যের প্রাথমিক, হাই স্কুল ও কলেজে শিক্ষক নিয়োগ বিষয়ে গুরুত্বপূর্ণ ঘোষণা করলেন শিক্ষামন্ত্রী ব্রাত্য বসু! জানুন বিস্তারিত।

নিজস্ব প্রতিবেদন :-এবার থেকে স্বচ্ছভাবে হবে নিয়োগ পদ্ধতি ।এমনটা স্পষ্ট ভাষায় জানিয়ে দিলেন শিক্ষামন্ত্রী ব্রাত্য বসু ।রাজ্যের যে বেহাল অবস্থা তাতে আগামী সময় বেকারত্বের সংখ্যা যে আরও বৃদ্ধি পাবে সেভাবে নতুন করে বলার আর কোন অপেক্ষা রাখেনা ।পাশাপাশি যারা টেট পরীক্ষা দিয়েছেন এবং যারা উত্তীর্ণ হয়েছেন তাদেরকে এখনো পর্যন্ত সঠিকভাবে নিযুক্ত করতে পারেনি রাজ্য সরকার ।যার ফলে একাধিক আন্দোলন-বিক্ষোভ এমনকি কোর্টে মামলা জারি করা হয়েছে তবে এবার বিপুলসংখ্যক শিক্ষকদেরকে প্রাথমিক উচ্চ প্রাথমিক এবং কলেজে নিয়োগ করতে চলেছে রাজ্য সরকার।

শিক্ষামন্ত্রী ব্রাত্য বসু ঐদিন লাইভ কনফারেন্সের মাধ্যমে জানান যে পুজোর আগে প্রাথমিক স্তরে প্রায় 4 হাজার শিক্ষককে নিয়োগ করা হয়েছে জগদ্ধাত্রী পুজোর পরে কি নোটিশের মাধ্যমে আরো 1700 জনকে নিয়োগ করা হবে বলে জানিয়েছেন তিনি ।অপরদিকে উচ্চ প্রাথমিকে শিক্ষক নিয়োগ করা সম্পর্কে তিনি জানান যে আপার প্রাইমারি নিয়ে আদালতে মামলা চলছে। আদালতের নির্দেশে নিয়োগ হবে। গ্রিভারেন্স শুনানি শেষে কোর্ট যা সিদ্ধান্ত নেবে। ১২,০০০ শিক্ষক পদে নিয়োগ করতে সরকার বদ্ধপরিকর।

কলেজে শিক্ষক নিয়োগ সম্পর্কে শিক্ষামন্ত্রী ব্রাত্য বসুর জানান যে কলেজ সার্ভিস কমিশন এর আওতায় সহকারী অধ্যাপক পদের জন্য খুব শিগগিরই নিয়োগ করা হবে এবং খুব অল্প সময়ের মধ্যে এর নোটিশ জারি করা হবে। তিনি বলেন যে এবার থেকে প্রতিবছর টেট পরীক্ষা হবে। আমি শিক্ষা মন্ত্রী হিসেবে লজ্জিত যে গত পাঁচ বছরে টেট পরীক্ষা নিয়ে একাধিক কেলেঙ্কারি দেখা গেছে তবে এক্ষেত্রে সম্পূর্ণ স্বচ্ছতার সাথে নিয়োগ করা হবে কোন রকম দুর্নীতিকে প্রশ্রয় দেওয়া হবে না পাশাপাশি তিনি এটাও বলেছেন যে যারা আন্দোলন করছেন তারা আন্দোলন করুন যারা মামলা করছেন তারা মামলা করুন এটা তাদের অধিকার কিন্তু সরকার কর্মসংস্থান বাড়াতে বদ্ধপরিকর।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button