সহজ ঘরোয়া উপায়ে দূর করুন ঠোঁটের কালচে ভাব! রইল 6 টি পদ্ধতি।

নিজস্ব প্রতিবেদন :-শরীরের সৌন্দর্য তা কিছুটা হলেও নির্ভর করে ঠোঁটের উপর । অর্থাৎ শরীরের মধ্যে সবথেকে আকর্ষনীয় স্থান হল ঠোঁট । ঠোঁট যার যত সুন্দর তাকেতো দেখতে ভালো লাগে । একদম ঠিক শুনেছেন । কিন্তু কোন কারণে যদি আপনার লাল টুকটুকে ঠোঁট কালো ঠোঁটে পরিণত হয় তাহলে কি আপনাকে আগের মতন দেখতে সুন্দর লাগবে?

অবশ্যই মিষ্টি লাগবে না এবং এই ঘটনা নতুন ঘটেছে এমন কিন্তু নয় । এর আগে এমন বহু ঘটনা ঘটেছে যেখানে দেখা যাচ্ছে যে লাল টুকটুকে ঠোঁট বিশিষ্ট মানুষকে পরিণত হয়েছে এর অনেকগুলো কারণ রয়েছে।তবে আজকের এই প্রতিবেদনের মাধ্যমে যে কারণগুলো আপনাদের সামনে তুলে ধরতে চলেছি তার মাধ্যমে কিন্তু আপনার আপুর আবার পুনরায় আপনার লাল টুকটুকে ঠোঁট ফিরে পেতে পারেন।

দুধের সরের :- এর মাধ্যমে ঠোঁটের গোলাপি আভা ধরে রাখার এই পদ্ধতিটি প্রাচীন কাল থেকেই চলে আসছে। প্রাচীন যুগে রানীরা এই পদ্ধতি ব্যবহার করতেন। আপনিও এই পদ্ধতির মাধ্যমে আপনার ঠোঁটের হারানো দ্যুতি ফিরে পেতে পারেন। দুধের সরে মধু মিশিয়ে ঠোঁটে লাগান। দিনে বেশ কয়েকবার ব্যবহারে কিছুদিনের মধ্যেই আপনার ঠোঁটে ফিরবে গোলাপি আভা।

অ্যালোভেরা ও মধু:- এক টুকরো অ্যালোভেরার ওপর দুই তিন ফোঁটা মধু দিয়ে ঠোঁটের মধ্যে মাসাজ করবেন ।
অ্যালোভেরা ও মধু প্রাকৃতিক ময়েশ্চারাইজার হিসেবে পরিচিত এটি ঠোঁটকে ময়েশ্চারাইজার করে ঠোঁটের ফাটা প্রতিরোধ করবে ।

বরফ :-অনেকেই হয়তো এই তথ্যটা জানেনা ।কিন্তু আপনি হয়তো জানলে অবাক হবেন যদি প্রতিনিয়ত এক টুকরো বরফ আপনি আপনার ঠোঁটের মধ্যে ঘষতে থাকেন তাহলে কিন্তু ঠোঁটের রুক্ষতা দূরে চলে যায় এবং ঠোট লাল হয়ে ওঠে ।

চিনি:- প্রাকৃতিক স্ক্রাবার হিসেবে চিনি ব্যবহার করা হয় অনেক কাজেই। চিনি দিয়ে ঠোঁট স্ক্রাব করলে ঠোঁটের কালচে ভাব দূর হওয়ার সাথে সাথে ঠোঁটের মরা চামড়াও দূর হয়। ত্বকের জন্য স্ক্রাবিং যতটা গুরুত্বপূর্ণ ঠোঁটের জন্যও ঠিক তাই। ৩ চামচ চিনি ও ২ চামচ বাটার একসাথে মিসিয়ে একটি পেস্ট তৈরি করে নিন। সপ্তাহে অন্তত ২ বার এই পেস্টটি দিয়ে ঠোঁট স্ক্রাব করুন। এতে আপনার ঠোঁটের মরা চামড়া দূর হবে এবং কালচে ভাব দূর হয়ে ঠোঁটে গোলাপি আভা আসবে।

বিটরুট:-যদি আপনার ঠোঁট কোন কারণে কালো হয়ে যায় তাহলে বিটরুটের পেস্ট ৫-১০ মিনিটের মধ্যে লাগিয়ে রাখতে পারেন । কারণ এর মধ্যে রয়েছে প্রচুর পরিমাণে অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট যা আপনার ঠোঁটের প্রাণ সঞ্চার করতে সাহায্য করবে এবং ঠোঁটের মধ্যে একটি গোলাপি আভা সৃষ্টি করতে পারবে ।

লেবুর রস :-লেবুর রসের মধ্যে রয়েছে প্রচুর পরিমাণে ব্লিচিং উপাদানগুলি । তাই রাত্রে শুতে যাওয়ার আগে যদি আপনি প্রতিনিয়ত ও লেবুর রস ঠোঁটের মধ্যে লাগাতে শুরু করেন তাহলে কিন্তু মাত্র কয়েকদিনেই আপনার ঠোঁট পুনরায় কাল থেকে লালে পরিণত হতে শুরু করবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button